About

HomeSatkhira is the first community networking portal for

  • The people of Satkhira
  • The lovers of Satkhira
  • Them who want to know about Satkhira

This community has rich collection of services. You can use this community portal for expressing yourself. Here you can share your daily feelings, works, comments, thoughts with thousands of peoples. We can make a strong network for the development, dream and prosper of Satkhira.
It’s like a facebook for the people of Satkhira with more services for expressing yourself to others.

  • You can create your own profile with the privacy settings you like
  • You can create new groups for your school, college, university, social issues, knowledge, computer etc.
  • You can use the Forum to share current issues and can express your thoughts to other
  • You can seek help from others for your problems
  • You can enrich this community portal for your active participation and suggestions for further development

Join today and invite your friends here.
This is a voluntary initiative and is passing the beta stage. Bugs may be found during using. Please let the development team knows about the problems you faced and help us to improve the site.
For any purpose please feel free to communicate us at [email protected]
 
হোম সাতক্ষীরায় মডারেটর হিসাবে আছেন (যোগাযোগের মাধ্যম সহ)
হুমায়ুন কবির মিন্টু ( @hkmintu ) ই-মেইলঃ [email protected]
এম এ কে রিপন ( @makripon ) ই-মেইলঃ [email protected]
মডারেটরদের দৃষ্টি আকর্ষনের জন্য আপডেটে অথবা কমেন্টে এই লেখা দুটো ব্যবহার করুন- @hkmintu @makripon । এতে করে তারা জানতে পারবেন তাদের দৃষ্টি আকর্ষনের কথা।
হোম সাতক্ষীরাকে একটি সুন্দর, কল্যানকামী সাইট হিসাবে টিকে থাকতে এবং চলতে সাহায্য করুন।
 

হোম সাতক্ষীরা, একটি স্বপ্নের শুরু

এডমিন ডেস্ক থেকে
 
হোম সাতক্ষীরা একটি স্বপ্ন, একটি স্বপ্নযাত্রার সূচনা । আমরা (আপনি সহ) যারা এই প্রচেষ্টার সঙ্গে আছি সবাই এর যাত্রী । আমাদের লক্ষ্য একটাই, আমাদের সাতক্ষীরাকে বিশ্বের সামনে তুলে ধরা, সাতক্ষীরার জন্য কিছু করা । আমাদের সাতক্ষীরা খুবই অবহেলিত যদিও দেশের জিডিপির একটা উল্লেখযোগ্য অংশ আসে সাতক্ষীরা থেকে । সাতক্ষীরার মানুষ যেমন অতিথিপরায়ন তেমনি আত্মসম্মানী । নিজের সম্মান নষ্ট করে স্বজনপ্রীতি সাতক্ষীরার মানুষের বৈশিষ্ট্য নয়, যার কারনে সাতক্ষীরার মানুষ চাকুরি, শিক্ষা-দীক্ষা, সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা এসব থেকে পিছিয়ে আছে । অনেকেই আছেন সঠিক তথ্য, অর্থ এসবের অভাবে প্রতিভা থাকা সত্ত্বেও বেশীদূর যেতে পারেন না আবার অনেকেই আছেন যারা এই সমস্ত প্রতিভাবানদের সহযোগীতা করতে চান । হোম সাতক্ষীরা এই দুই প্রকার মানুষের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরি করতে চায় । এটি মাত্র একটি উদাহরন মাত্র । এরকম অসংখ্য উদ্দেশ্য আছে হোম সাতক্ষীরার ।
গত প্রায় ২ বছর ধরে আমরা খোঁজ করছিলাম অনলাইনে সাতক্ষীরা সম্পর্কে কি কি তথ্য পাওয়া যায় । গুগলে সার্চ দিয়ে যা পাওয়া গেল তা সাতক্ষীরার অনেক তথ্য পাওয়ার ব্যাপারে যথেষ্ট নয় ।তখন থেকেই আমাদের চিন্তা ছিল অনলাইনে সাতক্ষীরাকে তুলে ধরা । কিন্তু সমস্যা হল আমাদের সবাই ব্যস্ত । কারো এত বেশী সময় নেই যে দিনের পর দিন তথ্য সংগ্রহ করে তা একজায়গায় করা যায় । ঠিক তখন মনে হল দেশ বিদেশে সাতক্ষীরার অনেকেই আছেন যারা ইন্টারনেট ব্যবহার করেন । আর এখন মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ থাকায় প্রত্যেক গ্রামেই এমন লোক পাওয়া অসম্ভব নয় । তখন আমাদের পরিকল্পনা ছিল একটা নিউজ ভিত্তিক সাইট করা যেখানে সাতক্ষীরার ইতিহাস, ঐতিহ্য, প্রতিদিনের সংবাদ সব উঠে আসবে । পরে পরিকল্পনা পরিবর্তন করে ভাবলাম একটা সোস্যাল কমিউনিটি করব । যেখানে সাতক্ষীরার একেবারে প্রান্তিক মানুষটি থেকে সর্বোচ্চ ক্ষমতাবান মানুষটিও থাকবেন নেটের ২ প্রান্তে । যে মানুষটা বিদেশে থেকে পরিশ্রম করে অর্থ উপার্জন করছেন তিনি তারই গ্রামের এক যুবকের সঙ্গে কথা বলে জানবেন কি অবস্থা তার গ্রামের । যে ছেলেটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে চায় সে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া কোন এক ভাইয়ের কাছ থেকে তার প্রয়োজনীয় তথ্য জেনে নিবে । সাতক্ষীরার প্রত্যন্ত অঞ্চল সহ সবখানে যে বা যারা প্রতিনিয়ত মানুষের জন্য কাজ করে চলেছেন নিরবে আমরা তাদের পরিচিতি তুলে ধরব । সবাই তাদের অবদান কে স্মরন করে শ্রদ্ধা দেখাবে । যে ছেলেটি বা মেয়েটি অর্থের অভাবে পড়াশুনা চালিয়ে যেতে পারছে না হোম সাতক্ষীরার কোন এক ভাই তার বিদেশী বন্ধুর কাছ থেকে তার জন্য কিছু অর্থ সংগ্রহ করে দিবে । বড় কোম্পানিতে যিনি চাকুরি করছেন তিনি কোন এক অভাবী বেকার কে একটা চাকুরির ব্যাবস্থা করে দিবেন । যার ঢাকায় পরীক্ষা দিতে এসে থাকার জায়গা নেই তাকে অন্য একজন আমন্ত্রন জানাবে তার বাসায় থাকার জন্য । সদস্যরা শিক্ষা, স্বাস্থ্য, দূর্যোগ, পরিবেশ, সংস্কৃতি, সাহিত্য, সামাজিক সচেতনতা প্রভৃতি বিষয়ে উদ্যোগ নিবেন । ইটালীর বিশ্ববিদ্যালয়ে যে বড় ভাই পড়েন বিদেশী বৃত্তি নিয়ে তিনি অন্যদেরকেও বলে দিবেন বিদেশে সহজে উচ্চ শিক্ষার পথ ।প্রযুক্তি, কম্পিউটার জ্ঞানে দক্ষ মানুষটি সহযোগীতা করবে অন্যদের । সবাই মিলে সুন্দর ও আনন্দঘন পরিবেশে পারষ্পরিক সম্পর্ক উন্নয়ন করবেন । এমন আরো যা কিছু ভাল কাজ, যা সাতক্ষীরা, সাতক্ষীরার মানুষের উপকারে আসবে তার সঙ্গে থাকতে চায় হোম সাতক্ষীরা । এগুলোই ছিল হোম সাতক্ষীরার প্রতিষ্ঠাকালীন উদ্দেশ্য ।
প্রথমে কয়েকটি ডোমেইন চেক করা হয় কিন্তু সাইটে তেমন কিছু না থাকলেও ডোমেইন গুলো আগেই রেজিস্ট্রেশন করা ছিল । তারপর হোম সাতক্ষীরা ডোমেইন টি চেক করে, জুন ২৪, ২০১০ তারিখে রেজিস্ট্রেশন করা হয় এবং  জুলাই ০৪, ২০১০ তারিখে প্রাইভেসী প্রটেক্ট করা হয় । মে ২৪, ২০১০ তারিখে বিশ্বের অন্যতম প্রধান হোস্টিং কোম্পানি ব্লুহোস্ট থেকে হোস্টিং স্পেস কেনা ছিল ।হোম সাতক্ষীরাকে সেখানে স্পেস দেওয়া হয় । হোম সাতক্ষীরা ডোমেইনের রেজিস্টার ফাস্ট ডোমেইন ইনক্ যা ব্লুহোস্টের একটা সাবসিডিয়ারি প্রতিষ্ঠান । অন্যদের তুলনায় তাদের প্রাইস একটু বেশী হলেও আমরা সবসময় চেষ্টা করি সবচেয়ে ভাল টি নেয়ার ।
অনেকেই মন্তব্য করেন হোম সাতক্ষীরার এডমিন কারা । এখানে একটি মজার ঘটনা আছে । যারা একটু অভিজ্ঞ তারা চাইলে জুন ২৪ থেকে জুলাই ০৪, ২০১০ এর ভিতর ডোমেইনের ইনফরমেশান চেক করলে জানতে পারতেন ডোমেইন টি কাদের নামে রেজিস্ট্রেশন করা । কিন্তু জুলাই ০৪, ২০১০ এ আরো অতিরিক্ত ৪ ডলার খরচ করে ডোমেইনের রেজিস্ট্রশন ইনফরমেশান প্রাইভেট করা হয় । এটা কেন করা হয় সে প্রসঙ্গে একটু পরে আসছি ।
হোম সাতক্ষীরা যারা চালান তাদের কেউই ধনী নন, এমনকি এডমিনদের মাসিক উপার্জনও তুলনামূলক অনেক কম । আমাদের অন্য কিছু সাইট আছে যেখানে আমরা কমার্শিয়ালি চিন্তা করি কিন্তু হোম সাতক্ষীরা আমাদের ভালবাসার সম্পদ যা আমরা সাতক্ষীরাকে ভালবেসেই করেছি । আমাদের শ্রম,সময়, অর্থ সবই এই ভালবাসার কারনে । যার জন্য আমরা হোম সাতক্ষীরাতে কোন বিজ্ঞাপন ও দেই না, ভবিষ্যতেও দেয়ার ইচ্ছা নেই । আমরা আমাদের অন্য কোন সাইট কিম্বা অন্য কোন কাজ কর্মের প্রচারনাও চালাই না । হোম সাতক্ষীরার হোস্টিং, ডোমেইনের সব খরচ দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী এক ছোট বোন এবং আগামীতেও দিবেন । তিনি নিজেও ওখানকার ছাত্রী । আশ্চর্যের বিষয় হল উনি ইন্টারনেট ব্যবহার করেন খুব কম এবং হোম সাতক্ষীরাতে তার নিজের কোন একাউন্ট ও নেই । উনাকে এবং আমাদের কাউকে ধন্যবাদ দেয়ার এবং কৃতজ্ঞতা জানানোর দরকার নেই । মানুষ মাত্রই স্বার্থপর । এর বাইরে আমরাও নই । আমাদের যে স্বার্থ এখানে আছে তা হল, আমরা সাতক্ষীরাকে ভালবেসে এই সাইট করেছি এবং আপনাদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহনে আমরা আনন্দিত হই । মানুষ যেখানে হাজার হাজার টাকা দিয়েও আনন্দ কিনতে পারে না তখন আমরা এই সামান্য অর্থ ও পরিশ্রম দিয়েই আনন্দ পাই । যে আনন্দের মূল্য অনেক বেশী, এই ক্ষেত্রে আমরা আপনাদের কাছে ঋনী বলতে পারেন ।
এখন আসি গোপনীয়তা প্রসঙ্গে । হোম সাতক্ষীরা বরাবরই এডমিনদের পরিচিতি গোপন করে । এমন কি সোস্যাল কমিউনিকেশনের দায়িত্বে যিনি আছেন তিনিও তার বিস্তারিত তথ্য দেন না । এডমিনরা সচারচার কোন সদস্যের আপডেটে কমেন্ট করেন না যদি না সেটা সাইট সম্পর্কিত হয় । আমাদের দেশের মানুষ নৃতাত্ত্বিক ভাবে রাজনীতি সচেতন । রাজনৈতিক, ধর্মীয়, অঞ্চল, স্কুল বিভিন্ন কারনে বিরোধে জড়িয়ে অনেক ভাল উদ্যোগও অতীতে নষ্ট হয়েছে । সাতক্ষীরার জনসংগঠন সমূহের ইতিহাসও সুখের নয় । নেতৃত্বের কোন্দলে ভেঙ্গে গেছে অনেক ভাল প্রচেষ্টা । সাইটের এডমিনরা এই জন্য যন্ত্র অথবা রোবট হয়ে থাকতে চান শুধুমাত্র হোম সাতক্ষীরার নিরপেক্ষতা, অরাজনৈতিক, অসাম্প্রদায়িক, গঠনমূলক এবং সুস্থ্য ভাবমূর্তি ধরে রাখতে । কারন এডমিনদের কোন কমেন্ট অথবা পরিচয়ে কেউ কেউ রাজনৈতিক, সামাজিক, ধর্মীয় অথবা নেতৃত্বের গন্ধ খুঁজে বের করে সাইটে বিরোধ তৈরি করতে পারেন ।
শুধু তাই নয় । সদস্যদের সঙ্গে সরাসরি চ্যাট, কমেন্ট, ম্যাসেজ আদান প্রদানের সুযোগ সৃষ্টি হলে কারো কারো সঙ্গে বিশেষ সম্পর্ক হওয়াও অস্বাভাবিক না । তখন পক্ষপাতিত্বের প্রশ্নও চলে আসতে পারে যা আমরা প্রত্যাশা করি না ।
আমরা মুখে গনতন্ত্রের কথা বললেও ব্যক্তি,পরিবার, সমাজ, রাষ্ট্র সর্বক্ষেত্রে গনতন্ত্র চর্চা করি কি? কিন্তু হোম সাতক্ষীরা এই চর্চা করতে চায় সাইটে । যার কারনে যে কোন গুরুত্বপূর্ন সিদ্ধান্ত সবার সঙ্গে শেয়ার করে এবং সবার মতামতের ভিত্তিতে বাস্তবায়ন করা হয় । এর অর্থ এই নয় যে সকল সদস্য জানবেন কিম্বা সবার অংশগ্রহন লাগবে । আমরা সক্রিয় সদস্যদের মতামতই নিয়ে থাকি ।যারা সাইটে দিনের পর দিন অনুপস্থিত তারা জনাবেন কিভাবে?
হোম সাতক্ষীরার সৌভাগ্য যে এই চার মাসে আপনাদের মত তিন শতাধিক সদস্য এখানে নাম লিখিয়েছেন যারা বিভিন্নভাবে স্ব স্ব ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত এবং মেধাবী । এই চলার পথে কম ঝড় ঝাপটা আসেনি ।বিরোধীতাও এসেছে বিভিন্ন পক্ষ থেকে । অনেকেই নানাভাবে কটাক্ষ এবং সমালোচনা করেছেন জেনে অথবা না জেনে । তবে গঠনমুলক সমালোচনা এবং পরামর্শও দিয়েছেন অনেকে যা সাইটের উন্নয়নে রেখেছে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা ।
এডমিনদের জন্য প্রথম ধাক্কাটা আসে জুন ২৮ তারিখে । ২৬ শে জুন সাইট ডেভেলপ হওয়ার পরে ২৮ তারিখে একটা আপডেট দিতে গিয়ে সমস্যা দেখা দেয় । তখন পর্যন্ত মাত্র ৫/৬ জন সদস্য রেজিস্ট্রেশন করেছিলেন । তাদের রেজিস্ট্রেশন তথ্য মুছে যায় । অবশ্য তখন সাইটের বেটা ভার্সন চলছিল । ডিজাইনটাও ছিল অন্য রকম ।২৮ শে জুন বর্তমান ডিজাইনে সাইট ফিরিয়ে আনা হয়। ২৯ শে জুন সাইট উন্মুক্ত করে দেয়া হয় । যাদের রেজিঃ তথ্য মুছে যায় তাদের কে পুনরায় রেজিঃ করতে বলা হয় মেইল আই ডি তে মেইল করে ।এরপর সদস্য সংখ্যা খুব ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে । তবে যারা তখন রেজিঃ করেছিলেন তাদের প্রায় সকলেই সক্রিয় ছিলেন । আগস্টের ১২ তারিখে প্রথম আলোতে ছোট্ট একটা নিউজ আসায় সাইটের সদস্য সংখ্যা এক দুই দিনেই বেড়ে ৪৮ থেকে ১৫৪ হয়ে যায় । আমরা পেলাম অনেক সদস্য কিন্তু সবাই সক্রিয় ছিলেন না । তবে সেই সময়ে প্রচুর আপডেট আসত যা এখন অনেক কমে গেছে । তবে সাইটে এখন অনেক ডেডিকেটেড সদস্য আছেন যারা সাইটের জন্য অনেক করছেন । হোম সাতক্ষীরার প্রতি তাদের আন্তরিকতা, ভালবাসা আমাদের চেয়ে কোন অংশে কম নয় । আপনাদের সকলের প্রতি রইল আমাদের স্যালুট ।
হোম সাতক্ষীরার বয়স বেশী না, একেবারেই শিশু বলা যায় । এই শিশুর অদর, যত্ন,পরিচর্যা সব কিছু করছেন আপনারা । একদিন সে অনেক বড় হবে, সবার আশা পূরন করবে । আপনাদের কাছে আমাদের প্রত্যাশা হল আপনারা নিয়মিত সাইটে আসবেন, আপনাদের আপডেট দিবেন, অন্যের লেখায় কমেন্ট করে তাকে উৎসাহিত করবেন, পছন্দসই গ্রুপে যোগ দিবেন, ফোরামে সুন্দর সুন্দর লেখা পোস্ট দিবেন, পোস্টে কমেন্ট করবেন, অন্যদেরকেও সাইটে নিয়ে আসবেন, সামষ্টিক কাজে অংশগ্রহন করবেন । আসুন আমরা সবাই মিলে আমাদের সাতক্ষীরার জন্য কিছু করি, সাতক্ষীরাকে পরিবর্তন করি, দেশকে ভালবাসি । মানুষ হিসাবে এটুকু আমাদের দায়িত্ব ।